ওয়ালটন বাটন মোবাইল দাম ২০২২ - Walton Button Mobile Price

ওয়ালটন বাটন মোবাইল দাম ২০২২

ওয়ালটন বাটন মোবাইল দাম ২০২২

আমরা আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করতে চলেছে ওয়ালটন বাটন মোবাইলের দাম 2022 কিরকম মোবাইলের দাম 2022 সালে এসে কতটুকু কমেছে এবং ওয়ালটন বাটন মোবাইলের দাম কতটুকু পেরেছি এবং কম বাজেটের মধ্যে ওয়ালটন বাটন মোবাইল শেয়ার করার চেষ্টা করবো যে মোবাইলগুলো দামের তুলনায় অনেক অনেক ফিচার সমৃদ্ধ বাটন মোবাইল।

ওয়ালটন বাটন মোবাইল

সর্বপ্রথম আপনাদের সাথে কিছু বিষয় ক্লিয়ার করা যাক তা হচ্ছে আমরা যখন আমাদের দেশীয় কোন কোম্পানির মোবাইল ফোন সম্পর্কে জানতে পারি তখন আমাদের মনের ভিতর একটা সন্দেহ সৃষ্টি হয় যেহেতু এটা বাংলাদেশি তৈরি হয় সেহেতু এই মোবাইলটা ভালো নয়। 

সর্বপ্রথম আমাদের পেইজ চিন্তাভাবনা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে কারণ আমাদের বাংলাদেশে যে মোবাইল গুলো তৈরি করা হয় সেগুলো আমরা বিদেশ থেকে আসা মোবাইলগুলোর থেকেও অনেক কম দামে ক্রয় করতে পারব।

বাংলাদেশে একমাত্র কোম্পানি হচ্ছে ওয়ালটন যারা বিভিন্ন রকম পণ্য নিয়ে কাজ করে থাকে। ওয়ালটন কোম্পানি এন্ড্রয়েড মোবাইল থেকে শুরু করে ল্যাপটপ ডেক্সটপ থেকে শুরু করে নানা ধরনের পণ্য নিয়ে তারা কাজ করে থাকে সেই পাশাপাশি তারা বাটন মোবাইল তৈরি করে থাকে।

আজকে আমরা আপনাদের সাথে কিছু ওয়ালটন বাটন মোবাইল শেয়ার করবো যেগুলো অনেক ভালো হবে কম টাকার মধ্যে চলুন তাহলে শুরু করা যাক ওয়ালটন বাটন মোবাইলের দাম ও ছবি সহকারে বিস্তারিত।

Walton Olvio ML20 বাটন মোবাইল

এই মোবাইলটা কিনতে গেলে দাম পড়বে 900 টাকা মাত্র তবে আমাদের কাছে ওয়ালটনের এই মোবাইলটি দামের তুলনায় এর ডিজাইন এবং এর মান অনেক উন্নত মানে হয়েছে। ওয়ালটন বাটন মোবাইল থেকে ব্যাটারি হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে 1000 এমএইচ লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি এর ব্যাটারি ব্যাকআপ পেয়ে যাবেন 8 থেকে 10 ঘন্টা পর্যন্ত তবে এর কমবেশি হতে পারে।

এই মোবাইলটিতে নেটওয়ার্ক হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে 2 জি। এই মোবাইলটার পিছনে রয়েছে একটা ডিজিটাল ক্যামেরা তবে এই মোবাইলটিতে সামনে কোন ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়নি। 

যদিও আমরা দেখতে পাই বর্তমান সময়ে অনেক বাটন মোবাইলে সামনে ক্যামেরা রয়েছে এবং পিছনে কয়েকটা ক্যামেরা রয়েছে যদিও সবগুলো ক্যামেরা দেওয়া নেই তারপরও একটা সৌন্দর্য বজায় থাকে। সেই সুবাদে ওয়ালটন তাদের এই বাটন মোবাইলটিতে সামনে একটা ক্যামেরা দিতে পারতো এতে করে মোবাইলটা আরো অনেক সুন্দর দেখা যেত।

ওয়ালটনের এ বাটন মোবাইলের দ্বারা আপনি আপনার পছন্দের অডিও ভিডিও রেকর্ড করতে পারবেন এবং খুব সহজে সেগুলো ফাইল ম্যানেজার এ সেভ করতে পারবেন। ওয়ালটন বাটন মোবাইলটিতে মাইক্রো ইউএসবি সাপোর্ট করে তাই আপনি খুব সহজে যে কোন ফাইল আদান প্রদান করতে পারবেন এতে করে কোন সমস্যা হবে না। 

এই দিক থেকে এই মোবাইলটা একটু এগিয়ে আমরা দেখেছি অনেক কোম্পানির বাটন মোবাইল গুলোতে মাইক্রো ইউএসবি সাপোর্ট করে না যার ফলে আমরা খুব সহজে যে কোন ফাইল আদান প্রদান করতে পারে না সে ক্ষেত্রে এই মোবাইলটা একধাপ এগিয়ে রয়েছে বলাই যায়।

আমরা সব সময় দেখে থাকি বেশিরভাগ বাটন মোবাইল গুলো অনেকটা মোটা হয়ে থাকে কিন্তু আপনি ওয়ালটনের এই বাটন মোবাইল টা কিনলে দেখতে পারবেন অনেকটাই পাতলা। 

এই মোবাইলটির উচ্চতা হচ্ছে 140 মিলিমিটার এবং মোবাইলটির প্রস্থ হচ্ছে 40 মিলিমিটার। তাই মোবাইলটি নিয়ে হাঁটাচলা করতে আপনার কোন রকম সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে না অনায়াসে আপনি হাতে নিয়ে মোবাইলটা চলাফেরা করতে পারবেন।

আপনি মোবাইলটিতে ফেসবুক টচ লাইট এমন কোন ব্ল্যাকলিস্ট সহ অন্যান্য সব প্রয়োজনীয় ফিচারগুলো পেয়ে যাবেন যেহেতু এ মোবাইলটিতে ফেসবুক ব্যবহার করা যাবে সেও তো আপনি এই মোবাইলটি দিয়ে টুকটাক ইন্টার্নেট ব্রাউজিং করতে পারবেন।

আপনি যদি এভারটন মোবাইলটি সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে চান তাহলে মোবাইল টির নাম লিখে গুগলে সার্চ করলে খুব সহজে আপনি ওয়ালটনের এইবার মোবাইলটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন এবং আপনি চাইলে খুব সহজে অনলাইনে অর্ডার করতে পারবেন।

আপনাদের সুবিধার জন্যে আমরা নিচে একটা লিঙ্ক দিয়ে দিয়েছি যে লিংকে ক্লিক করে আপনি ওয়ালটনের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে এই মোবাইলটি সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিতে পারবেন- বিস্তারিত জেনে নিন এই লিঙ্কে ক্লিক করে

Walton Olvio ML53 বাটন মোবাইল দাম

আমাদের লিস্টের দ্বিতীয় নম্বরে রয়েছে ওয়ালটনের এই বাটন মোবাইল টি এই বাটন মোবাইল টির দাম বাংলাদেশে 800 টাকা মাত্র।

মোবাইলটি দিয়ে আপনি গান শুনা গান দেখা অর্থাৎ অডিও গান এবং ভিডিও গান সহ এবং অডিও রেকর্ডিং এবং ভিডিও রেকর্ডিং করতে পারবেন খুব সহজে। মোবাইলটির পিছনে একটা ডিজিটাল ক্যামেরা রয়েছে যে ক্যামেরার সাহায্যে আপনি খুব সহজে ছবি এবং ভিডিও রেকর্ডিং করতে পারবেন।মোবাইলটিতে মাইক্রো ইউএসবি সাপোর্ট করে যার ফলে আপনি খুব সহজেই যেকোন ফাইল আদান প্রদান করতে পারবেন কোন প্রকার সমস্যা ছাড়াই।

এক কথায় বলতে গেলে উপরের মোবাইলটিতে জেজে ফিচারগুলো রয়েছে সবগুলো ফিচার ইয়ে মোবাইলটিতে রয়েছে শুধুমাত্র মডেল ভিন্ন। আপনি যদি ওয়ালটন বাটন মোবাইলটা কিনতে চান তাহলে আপনার নিকটস্থ যেকোনো মোবাইলের দোকান থেকে এই মোবাইলটা কিনতে পারবেন। 

আপনি যদি এ মোবাইল টি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান তাহলে গুগলে গিয়ে এ মোবাইলটার মডেল লিখে সার্চ করলে আপনি বিস্তারিত জানতে পারবেন।

উপসংহার: আমরা এতক্ষণ ধরে আপনাদের সাথে আলোচনা করছে ওয়ালটন বাটন মোবাইল দাম সম্পর্কে। আমরা আপনাদের সাথে মাত্র দুইটা মোবাইল শেয়ার করেছি যে মোবাইল করুন বাজেটের মধ্যে সেরা মোবাইল বলে আমি মনে করি। 

আমাদের এই ওয়েবসাইটে বিভিন্ন রকম ইনকাম টিপস কিভাবে অনলাইন থেকে ইনকাম করা যায় এবং বিভিন্ন মোবাইল সম্পর্কে আর্টিকেল পাবলিশ করা হয় তাই আশা করি আপনার যদি এই ধরনের আর্টিকেল পছন্দ করে থাকেন এবং অনলাইন থেকে ইনকাম করতে চান তাহলে আমাদের ওয়েবসাইটের সাথেই থাকবেন ধন্যবাদ।

লক্ষ করুন আমাদের আজকের এই আর্টিকেলের মধ্যে যদি কোনরকম ভুল-ভ্রান্তি হয়ে থাকে তাহলে সেগুলো আমাদেরকে কমেন্টে জানাবেন আমরা আশা করি ঠিক করে নিতে পারব ধন্যবাদ।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url